Search This Blog

Theme images by MichaelJay. Powered by Blogger.

Blog Archive

Wednesday, December 7, 2016

চণ্ডিকা মহাকালী (নিপীড়িতা পৃথিবী ডাকে)

চণ্ডিকা মহাকালী


নিপীড়িতা পৃথিবী ডাকে


  জাগো চণ্ডিকা মহাকালী।


মৃতের শ্মশানে নাচো মৃত্যুঞ্জয়ী মহাশক্তি


  দনুজদলনী করালী।।


প্রাণহীন শবে শিব-শক্তি জাগাও


নারায়ণের যোগনিদ্রা ভাঙাও


অগ্নিশিখায় দশদিক রাঙাও


  বরাভয়দায়িণী নৃমুণ্ডমালী।।


শ্রীচণ্ডীতে তোরই শ্রীমুখের বাণী


কলিতে আবির্ভাব হবে তোর ভবানী।


এসেছে কলি, কালিকা এলি কই!


শুম্ভ-নিশুম্ভ জন্মেছে পুন ওই,


অভয়বাণী তব মাভৈঃ মাভৈঃ


  শুনিব কবে মা গো খর-করতালি।।


দেববৃন্দের স্তুতিতে সন্তুষ্ট হইয়া শুম্ভ-নিশুম্ভের হত্যার পর বরদানকালে দেবী বলিলেন–


পুনরপ্যতিরৌদ্রেণ রূপেণ পৃথিবীতলে।


অবতীর্য্য হনিষ্যামি বৈপ্রচিত্তাংস্তু দানবান।। (শ্রীশ্রীচণ্ডী-১১/৪৩)


ভক্ষয়ন্ত্যাশ্চ তানুগ্রান্ বৈপ্রচিত্তান্মহাসুরান্।


রক্তা দন্তা ভবিষ্যন্তি দাড়িম্বকুসুমোপমাঃ।। (ওই, ১১/৪৪)


  


ততো মাং দেবতাঃ স্বর্গে মর্ত্ত্যলোকে চ মানবাঃ।


স্তবন্তো ব্যাহরিষ্যন্তি সততং রক্তদন্তিকাম।। (ওই, ১১/৪৫)


  


অর্থাৎ– পুনরায় আমি অতি ভীষণ মূর্তিতে এই পৃথিবীতলে অবতীর্ণা হইয়া বিপ্রচিত্ত-বংশসম্ভূত দানবগণকে সংহার করিব। তখন ওই ভীষণ বৈপ্রচিত্ত দানবগণকে ভক্ষণ করায় আমার দন্তসমূহ দাড়িম্বপুষ্পের ন্যায় রক্তবর্ণ হইবে। তজ্জন্য স্বর্গে দেবগণ ও মর্ত্যে মানবগণ সতত আমার স্তব করিবে ও আমাকে রক্তদন্তিকা বলিয়া কীর্তন করিবে।


কেহ কেহ বলেন, বিপ্রচিত্তি ইন্দ্রসভার এক নর্তকী। এই উক্তিতে মনে হয়, কোনো নর্তকী-গর্ভজাত মানব পৃথিবীতে রাজত্ব করিয়া উৎপীড়ন করিবে এবং দেবী রক্তদন্তিকা রূপ ধরিয়া তাহাকেও হত্যা করিবেন।

No comments:
Write comments

Interested for our works and services?
Get more of our update !