Search This Blog

Theme images by MichaelJay. Powered by Blogger.

Blog Archive

Saturday, November 26, 2016

নিকটে

বাদলা-কালো স্নিগ্ধা আমার কান্ত এল রিমঝিমিয়ে,


বৃষ্টিতে তার বাজল নুপূর পায়জোরেরই শিঞ্জিনী যে।


ফুটল উষার মুখটি অরুণ, ছাইল বাদল তাম্বু ধরায়;


জমল আসর বর্ষা-বাসর, লাও সাকি লাও ভর-পিয়ালায়।


ভিজল কুঁড়ির বক্ষ-পরাগ হিম-শিশিরের আমেজ পেয়ে


হমদম! হরদম দাও মদ, মস্ত্ করো গজল গেয়ে!


ফেরদৌসেরফেরদৌস : স্বর্গ বিশেষ। ঝরকাঝরকা : বাতায়ন, গবাক্ষ। বেয়ে গুল-বাগিচায়গুল-বাগিচা : ফুলবাগান। চলচে হাওয়া,


এই তো রে ভাই ওক্তওক্ত : লগ্ন। খুশির, দ্রাক্ষারসে দিলকে নাওয়া।


কুঞ্জে জরীনজরীন : সোনালি। ফারসি ফরাস বিছিয়েচে আজ ফুলবালারা,


আজ চাই-ই চাই লাল-শিরাজি স্বচ্ছ-সরস খোর্মাখোর্মা : শুকনো খেজুর।-পারা!


মুক্তকেশী ঘোর-নয়না আজ হবে গো কান্তা সাকি,


চুম্বন এবং মিষ্টি হাতের মদ পেতে তাই ভরসা রাখি!


কান্তা সাথে বাঁচতে জনম চাও যদি কওসরকওসর : অমৃত।-অমিয়,


সুর বেঁধে বীণ সারেঙ্গিতে খুবসে শিরীনশিরীন : সুস্বাদু। শরাব পিয়ো!


খুঁজবে যেদিন সিকান্দারের বাঞ্ছিত আব্-হায়াতআব্-হায়াত : মৃতসঞ্জীবনী সুধা। কুঁয়ায়,


সন্ধান তার মিলবে আশেকআশেক : প্রেমিক। দিল-পিয়ারার ওষ্ঠ চুমায়!


খামখা তুমি মরছ কাজী শুষ্ক তোমার শাস্ত্র ঘেঁটে,


মুক্তি পাবে মদখোরের এই আল-কিমিয়ারআল-কিমিয়া : মধ্যযুগের রসায়ন। পাত্র চেটে!

No comments:
Write comments

Interested for our works and services?
Get more of our update !